সর্বশেষ

৩ মাসে রফতানি আয় ৭,১০৩ কোটি টাকা, ৮২ শতাংশ তৈরি পোশাকে

স্টাফ | আপডেট: ১০:৩৯, অক্টোবর ০৮ , ২০১৭


 জুলাই থেকে সেপ্টেম্বর এ ৩ মাসে রফতানি আয় হয়েছে ৭,১০৩ কোটি ৪৩ লাখ টাকা। এর মধ্যে শুধুমাত্র তৈরি পোশাক রফতানিই হয়েছে ৫,৮৫৮ কোটি ১৭ লাখ টাকার। যা মোট রফতানির প্রায় ৮২ শতাংশ। গতকাল রফতানি উন্নয়ন ব্যুরো এ তথ্য প্রকাশ করেছে।

চলতি ২০১৭-১৮ অর্থবছরে মোট রফতানি লক্ষ্যমাত্রা ৩৭.৫ বিলিয়ন মার্কিন ডলারের পণ্য। এর মধ্যে তিন মাসে কৌশলগত লক্ষ্যমাত্রা রয়েছে ৮ দশমিক ৯ বিলিয়ন ডলার। রফতানি হয়েছে ৮ দশমিক ৬৬ বিলিয়ন ডলারের। টাকার অংকে যার পরিমাণ ৭,১০৩ কোটি ৪৩ লাখ টাকা। যা লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে ২ দশমিক ৮৪ শতাংশ কম এবং গত বছরের একই সময়ের চেয়ে ৭ দশমিক ২৩ শতাংশ বেশি। আবার মোট রফতানি আয়ের ৮২ দশমিক ৪৬ শতাংশ দখল করে আছে তৈরি পোশাক শিল্প। এ সময়ে রফতানি হয়েছে ৭,১৪৪ দশমিক ১২ মিলিয়ন ডলার বা ৫,৮৫৮ কোটি ১৭ লাখ টাকার গার্মেন্ট পণ্য। প্রবৃদ্ধি হয়েছে ৭ দশমিক ১৭ শতাংশ। তবে লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে ০ দশমিক ৩৭ শতাংশ কম রফতানি হয়েছে এই তিন মাসে। একই সময়ে মোট তৈরি পোশাকের মধ্যে নিটওয়ার বেশি রফতানি হয়েছে। যার প্রবৃদ্ধির হার ১০ দশমিক ১৮ শতাংশ। ওভেনে প্রবৃদ্ধি হয়েছে ৪ দশমিক ০৪ শতাংশ। লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে ৫ দশমিক ১২ শতাংশ কম রফতানি হয়েছে।

জুলাই-সেপ্টেম্বরে কৃষিজাত পণ্য রফতানি হয়েছে ২০ দশমিক ৯৪ শতাংশ, রাসায়নিক পণ্য রফতানির প্রবৃদ্ধি হয়েছে ২ দশমিক ৯২ শতাংশ, রাবার জাতীয় পণ্য ৩৫ দশমিক ৬৯ শতাংশ, হস্তশিল্পজাত পণ্য ১৪ দশমিক ২৪ শতাংশ এবং চামড়া ও চামড়াজাত পণ্য রফতানির প্রবৃদ্ধি হয়েছে ১ দশমিক ৭৪ শতাংশ।

দেশের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ রফতানি পণ্য হলো প্রাথমিক ভোগ্যপণ্য। ৩ মাসে রফতানি হয়েছে ৩১৬ দশমিক ১৭ মিলিয়ন ডলারের পণ্য। আগের বছরের একই সময়ে রফতানি হয়েছিল ২৫৯ মিলিয়ন ডলারের পণ্য। প্রবৃদ্ধি হয়েছে ২২ দশমিক ০৭ শতাংশ। তৃতীয় প্রধান রফতানি পণ্য পাট ও পাটজাত পণ্যের রফতানি হয়েছে ২৩৬ দশমিক ১২ মিলিয়নের ডলারের। আগের বছরে একই সময়ে রফতানি হয়েছিল ২০৪ দশমিক ৫১ মিলিয়ন ডলারের পণ্য। প্রবৃদ্ধি হয়েছে ১৫ দশমিক ৪৬

পাঠকের মন্তব্য
লগইন করুন
লগইন মনে রাখুন