সর্বশেষ

অনলাইন ডেস্ক নিউজ | আপডেট: ০৮:৫০, জুলাই ১৭ , ২০১৭


আপনাকে যদি প্রশ্ন করা হয় একটি মোবাইলের মূল্য সর্বোচ্চ কত হতে পারে? উত্তরে আপনি যে দামগুলো বলবেন তা হয়তো কয়েক লাখের উপরে যাবে না। কিন্তু পৃথিবীতে এমন ১০টি মোবাইল রয়েছে যেগুলোর দাম শুনলে অনেকটা অবাক হতেই হবে আপনাকে।

ভার্চু সিগনেচার ডায়মন্ড- পৃথিবীর সবচেয়ে দামি মোবাইল তালিকার দশম স্থানটি অধিকার করে আছে বিখ্যাত ভার্চুর সিগনেচার ডায়মন্ড ফোনটি। প্লাটিনামের তৈরি এই ফোনের বিশেষ বৈশিষ্ট্য হল এর পুরোটাই হাত দিয়ে বানান, যন্ত্রের সাহায্য নেয়া হয়নি। ২০০টি হীরা দিয়ে সাজানো এই মডেলের একেকটি ফোনের মূল্য ৮৮ হাজার মার্কিন ডলার।

আইফোন প্রিন্সেস প্লাস ৭৬ হাজার ৪০০ মার্কিন ডলারের এই মোবাইলটি নবম স্থান দখল করে রেখেছে। শুধু বাহ্যিক কারণে ফোনটির এত দাম। কারণ ফোনটির সাজসজ্জায় সোনার পাশাপাশি ৩১৮ টুকরো হীরা ব্যবহার করা হয়েছে। আর এসব সোনা এবং হীরাগুলো ছিল উচ্চমানের। ব্ল্যাক ডায়মন্ড ভিআইপিএন স্মার্টফোন- এই মোবাইলটির দাম ৩ লাখ মার্কিন ডলার। সনি এরিকসনের এই ফোনটিতে আছে পলিকার্বনিক স্ক্রিন আর অর্গানিক এলইডি প্রযুক্তি। ফোনটিতে লাগান রয়েছে দুটি হীরা। এর একটি নেভিগেশন বাটনে এবং অপরটি ফোনের পেছনের অংশে। ভার্চু সিগনেচার কোবরা- ৭ নম্বর স্থানে থাকা ভার্চুর এই ফোনটির দুই পাশে গোখরো সাপের প্রতিকৃতি স্থান পাচ্ছে। ফরাসি মণিকার বুশেরোঁর ডিজাইন করা এই ফোনে আছে একটি ডিম্বাকৃতির ও একটি গোল হীরা, দুটি পান্না এবং ৪৩৯টি চুনি পাথর। দাম ৩ লাখ ১০ হাজার মার্কিন ডলার। গ্রেসো লুক্সর লাস ভেগাস জ্যাকপট- এই ফোনটি পৃথিবীর সবচেয়ে দামি মোবাইল তালিকার ষষ্ঠ স্থান দখল করে রেখেছে। ১৮০ গ্রাম নিখাদ সোনা দিয়ে মোড়ানো এই ফোনের ব্যাক প্যানেলটি বানানো হয়েছে প্রায় ২০০ বছরের পুরনো আফ্রিকান ব্ল্যাকউড দিয়ে। যা কিনা পৃথিবীর সবচেয়ে মূল্যবান কাঠ। ফোনটির দাম ১০ লাখ মার্কিন ডলার।

ডায়মন্ড ক্রিপ্টো স্মার্টফোন- পঞ্চম স্থানে থাকা এই ফোনটির চারপাশে বসানো আছে ৫০ খানা হীরা, এর মধ্যে ১০টি বিরল নীল রঙের। এছাড়া ফোনের কিছু কিছু অংশ সোনা দিয়ে তৈরি। মূল্য ১৩ লাখ মার্কিন ডলার। গোল্ডভিশ লে মিলিয়ন- ২০০৬-এ কান উৎসবে ১৩ লাখ মার্কিন ডলারে বিক্রীত এই ফোন সে সময় পৃথিবীর সবচেয়ে দামি ফোন হিসেবে গিনেস ওয়ার্ল্ড রেকর্ডসে স্থান করে নিয়েছিল। হোয়াইট গোল্ড আর ২০ ক্যারেট হীরা দিয়ে ফোনটি সাজানো হয়েছে। আইফোন ৩জি কিংস বাটন- ১৩৮ খানা হীরা দিয়ে সজ্জিত ফোনটির মূল্যমান ২৪ লাখ মার্কিন ডলার। সুপ্রিম গোল্ড স্ট্রাইকার আইফোন ৩জি-২৭১ গ্রাম ওজনের সোনার কেসিং দিয়ে তৈরি এই ফোনটির মূল্য ৩২ লাখ মার্কিন ডলার। এছাড়া ফোনটির স্ক্রিনের চারপাশে বসান আছে ৫৩টি এক ক্যারেট ওজনের হীরা। ডায়মন্ড রোজ আইফোন ৪- এখন পর্যন্ত পৃথিবীর সবচেয়ে দামি মোবাইল ফোনের আসনটি দখল করে রয়েছে আইফোনের এই মডেলটি। আট মিলিয়ন মার্কিন ডলার মূল্যের ফোনটির চারপাশে বসানো আছে ৫০০টি হীরা, যার ওজন সব মিলিয়ে ১০০ ক্যারেট। এছাড়া ফোনের পেছনে আইফোনের অর্ধেক খেয়ে ফেলা অ্যাপল লোগোটি সজ্জিত করা হয়েছে ৫৩টি হীরার টুকরা দিয়ে। ডায়মন্ড রোজের সামনের নেভিগেশন বাটনটি সম্পূর্ণ প্লাটিনামের তৈরি এবং এর ঠিক মাঝে বসান আছে আট ক্যারেটের একটি হীরা। প্রিয়টেক। সূত্র : ক্রেজিনিউজহাব

আসছে ৫১২ জিবির আইফোন ৮

স্টাফ | আপডেট: ১১:০৭, আগস্ট ২৪ , ২০১৭

আগামী মাসেই প্রযুক্তি প্রেমীদের হাতে উঠবে বহুল প্রতীক্ষিত আইফোন ৮। দীর্ঘদিন ধরেই ফোনটির আগমন নিয়ে চলছিল জল্পনা-কল্পনা। প্রযুক্তি বিষয়ক বিভিন্ন সূত্র জানাচ্ছে, আইফোনের এবারের সংস্করণটি হবে এ.....

  • সর্বশেষ
  • সর্বশেষ পঠিত

অবশেষে রানার বিরুদ্ধে আদালতে দুদকের চার্জশিট দাখিল

( ১০ জুলাই ২০১৪ ০৪:৫২ )

বাধা দিলে পাল্টা জবাব- খালেদা

( ১০ জুলাই ২০১৪ ০৪:৫২ )

'নক্ষত্র'-এ ই-শপিং

( ১০ জুলাই ২০১৪ ০৪:৫২ )

বিশ্বের শীর্ষ এক হাজার বিশ্ববিদ্যালয়ের মধ্যে নেই ঢাবি

( ১০ জুলাই ২০১৪ ০৪:৫২ )