সর্বশেষ

স্টাফ | আপডেট: ০৮:৪৯, ডিসেম্বর ১০ , ২০১৭



আব্দুর রহিম হাওলাদার(রাজু)::: আজ ১০ ডিসেম্বর অস্ট্রেলিয়া প্রবাসী প্রখ্যাত সাংবাদিক, বিদেশবাংলা ২৪ ডট কম’র সম্পাদক এবং এবিসি বাংলা ডট নেট’র প্রধান সম্পাদক মোহাম্মেদ আবদুল মতিনের জন্মদিন। সাংবাদিক এম এ মতিন ৭০ দশকের আজকের দিনে ভোলা জেলার বোরহানউদ্দিন থানার ধারিয়া গ্রামে সম্ভ্রান্ত মুসলিম পরিবারে জন্মগ্রহন করেন। পাঁচ ভাই তিন বোনের মধ্যে তিনি বাবা মায়ের ৭ম সন্তান। তিনি অনেক ছোটবেলায় বাবাকে হারিয়েছেন।

১৯৮৯ সালে জনাব মতিনের সাংবাদিকতা পেশার হাতে-খড়ি হয়। তারপর তিনি ১৯৯১ সালে দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার প্রতিথ-যশা সাংবাদিক সৈয়দ মুরতজা আলী (এস এম আলী) সম্পাদিত দি ডেইলি স্টার পত্রিকার গাজীপুর প্রতিবেদক হিসাবে যোগদান করেন। একই সময় তিনি টংগী থেকে প্রকাশিত সাপ্তাহিক অগ্নিসাক্ষী পত্রিকার ভারপ্রাপ্ত সম্পাদকের দায়িত্ত পালন করেন। ১৯৯৬ সালে মোস্তফা কামাল মহিউদ্দিন সম্পাদিত দৈনিক আবির্ভাব পত্রিকার চীফ রিপোর্টার হিসেবে যোগদান করেন। পরবর্তীতে একই গ্রুপ থেকে প্রকাশিত দি ডেইলি ডিসক্লোজার পত্রিকার চীফ রিপোর্টার হিসেবেও জনাব মতিন দায়িত্ব পালন করেন।

২০০০-২০০৩ সাল পর্যন্ত তিনি মাগুরা গ্রুপের (বর্তমানে বাংলাদেশ ডেভেলপমেণ্ট গ্রুপ) প্রধান জনসংযোগ কর্মকর্তা পদে এবং দক্ষতার সাথে নর্থ টাউন আবাসিক প্রকল্পের ‘প্রকল্প প্রধান’ হিসেবে দায়িত্ত পালন করেন।

 ২০০৩ সালে জনাব মতিন অস্ট্রেলিয়ায় অভিবাসন নিয়ে আসার পর প্রথমে ২০১২ সালের প্রথম দিকে অস্ট্রেলিয়ায় থেকে বাংলা ও ইংরেজী ভাষায় বিদেশবাংলা২৪ ডট কম ও পরবর্তীতে একই বছরের শেষের দিকে এবিসি বাংলা ডট নেট নামে দুইটি অনলাইন নিউজ পোর্টালের প্রতিষ্ঠাতা সম্পাদক হিসেবে অত্যন্ত দক্ষতার সাথে দায়িত্ব পালন করে আসছেন।

 নিউজ পোর্টাল দুইটি ইতিমধ্যেই দেশে ও প্রবাসে বিপুল জনপ্রিয়তা পেয়েছে। বিদেশবাংলা২৪ ডট কম হচ্ছে অস্ট্রেলিয়ায় থেকে বাংলা ভাষায় প্রকাশিত প্রথম ২৪ অনলাইন নিউজ পোর্টাল। জনাব মতিন দুই যুগেরও অধিক সময় ধরে সাংবাদিকতা পেশায় জড়িত রয়েছেন । আজকের এই দিনে তার জন্মস্থান ভোলাবাসির পক্ষ থেকে সাংবাদিক এম এ মতিনকে জন্মদিনের আন্তরিক অভিনন্দন, শুভেচ্ছা ও মোবারকবাদ

  • সর্বশেষ
  • সর্বশেষ পঠিত

অবশেষে রানার বিরুদ্ধে আদালতে দুদকের চার্জশিট দাখিল

( ১০ জুলাই ২০১৪ ০৪:৫২ )

বাধা দিলে পাল্টা জবাব- খালেদা

( ১০ জুলাই ২০১৪ ০৪:৫২ )

'নক্ষত্র'-এ ই-শপিং

( ১০ জুলাই ২০১৪ ০৪:৫২ )

বিশ্বের শীর্ষ এক হাজার বিশ্ববিদ্যালয়ের মধ্যে নেই ঢাবি

( ১০ জুলাই ২০১৪ ০৪:৫২ )