Main Menu

রসায়নে তিন বিজ্ঞানীর নোবেল পুরস্কার লাভ

ইয়াসমিন আক্তার:: মোবাইল ফোনসেট থেকে শুরু করে বৈদ্যুতিক নানা যন্ত্রে ব্যবহৃত লিথিয়াম আয়ন ব্যাটারির উন্নয়ন ঘটিয়ে এবার রসায়নে নোবেল পুরস্কার লাভ করেছেন তিন বিজ্ঞানী। রয়েল সুইডিশ অ্যাকাডেমি অব সায়েন্সেস বুধবার নোবেলজয়ী হিসেবে জার্মান বংশোদ্ভূত মার্কিন নাগরিক জন বি গুডএনাফ, ব্রিটিশ-আমেরিকান এম স্ট্যানলি হুইটিংহাম ও জাপানের ইয়োশিনোর নাম ঘোষণা করে।

পুরস্কারের ৯০ লাখ সুইডিশ ক্রোনা সমানভাবে ভাগ করে নেবেন তারা। আগামী ১০ ডিসেম্বর সুইডেনের রাজধানী স্টকহোমে আনুষ্ঠানিকভাবে তাদের হাতে পুরস্কার তুলে দেয়া হবে।

বিবিসি বলছে, ৯৭ বছরে নোবেল জয় করে অধ্যাপক গুডএনাফ সবচেয়ে বেশি বয়সে সবচেয়ে সম্মানজনক এই পুরস্কার জয়ের রেকর্ড গড়েন। রসায়নের অধ্যাপক উলফ রামস্ট্রোম বলেন, লিথিয়াম আয়ন ব্যাটারির ফলেই মোবাইল বিশ্ব সচল রয়েছে। হালকা ওজনের এই রিচার্জেবল ব্যাটারি মোবাইল ফোনসেট, ল্যাপটপ থেকে শুরু করে বৈদ্যুতিক গাড়িতেও ব্যবহৃত হয়।

রসায়নে নোবেলজয়ীদের নাম ঘোষণার পর নোবেল কমিটি বলে, বিশ্বব্যাপী পোর্টেবল ইলেকট্রনিক্স সচল রাখতে লিথিয়াম আয়ন ব্যাটারি ব্যবহৃত হচ্ছে। যার মাধ্যমে আমরা যোগাযোগ, কর্ম, পড়ালেখা, গান শোনা ও জ্ঞানার্জন করছি। কমিটির সদস্য সারা

স্নোগেরাপ লিনসে বলেন, এর ফলে আমরা প্রযুক্তিগত বিপ্লবের সঙ্গে সংযোগ ঘটাতে সক্ষম হয়েছি। সিএনএন বলছে, হুইটিংগাম ১৯৭০-এর দশকে প্রথম ব্যবহারযোগ্য লিথিয়াম ব্যাটারির উন্নয়ন ঘটান। এরপর গুডএনাফ ওই ব্যাটারির ক্ষমতাকে দ্বিগুণ করে তোলেন। এরপর আকিরা ইয়োশিনো ওই ব্যাটারি থেকে খাঁটি লিথিয়াম দূর করে লিথিয়াম আয়ন প্রযুক্তির উন্নয়ন ঘটনা। এই প্রযুক্তি খাঁটি লিথিয়াম থেকে বেশি নিরাপদ। এর ফলেই প্রাত্যহিক জীবনে এই ব্যাটারি ব্যবহার সহজ হয়েছে।

বরাবরের মতোই চিকিৎসা বিভাগের পুরস্কার ঘোষণার মধ্য দিয়ে গত সোমবার চলতি বছরের নোবেল মৌসুম শুরু হয়। সেদিন চিকিৎসায় এবং মঙ্গলবার পদার্থবিদ্যায় নোবেলজয়ীদের নাম ঘোষণা করা হয়। আজ বৃহস্পতিবার ঘোষণা করা হবে সাহিত্যের নোবেলজয়ীদের নাম।

এক জুরির স্বামীর বিরুদ্ধে ওঠা যৌন নিপীড়নের অভিযোগকে কেন্দ্র করে বিতর্কের মধ্যে গত বছর সাহিত্যের নোবেল পুরস্কার স্থগিত করেছিল রয়্যাল সুইডিশ অ্যাকাডেমি। এবার তাই একসঙ্গে ২০১৮ ও ২০১৯ সালের নোবেলবিজয়ীদের নাম জানানো হবে। আগামী শুক্রবার শান্তি এবং ১৪ অক্টোবর অর্থনীতিতে নোবেল বিজয়ীদের নাম ঘোষণা করা হবে।






আপনার মতামত দিন

Your email address will not be published. Required fields are marked as *

*