Main Menu

প্ররোচনা মামলায় স্ত্রীসহ পাঁচজনের বিরুদ্ধে চার্জশিট

আনিকা কবির, চট্টগ্রাম ব্যুরো:: চট্টগ্রামে চিকিৎসক মোস্তফা মোরশেদ আকাশকে আত্মহত্যার প্ররোচনার মামলায় তার স্ত্রী মিতুসহ পাঁচজনের বিরুদ্ধে আদালতে চার্জশিট (অভিযোগপত্র) দিয়েছে পুলিশ।

চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন আদালতের প্রসিকিউশন শাখায় সোমবার বিকালে চার্জশিট জমা দেয়ার পর বুধবার সংশ্লিষ্ট আদালতে পাঠানো হয়। মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা চান্দগাঁও থানার এসআই আবদুল কাদের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

চার্জশিটভুক্ত আসামিরা হলেন- আকাশের স্ত্রী তানজিলা হক চৌধুরী মিতু, মিতুর মা শামীমা শেলী, বাবা আনিসুল হক চৌধুরী, ছোট বোন সানজিলা হক চৌধুরী আলিশা এবং মিতুর কথিত বন্ধু ডা. মাহবুবুল আলম। তবে মিতুর অপর বন্ধু যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসী ভারতীয় নাগরিক উত্তম প্যাটেলকে চার্জশিট থেকে নট সেন্টআপ করা হয়েছে।

চলতি বছরের ৩১ জানুয়ারি ভোরে নগরীর চান্দগাঁও আবাসিক এলাকার নিজ বাসায় ইনজেকশনের মাধ্যমে শরীরে বিষ প্রয়োগ করে আত্মহত্যা করেন চিকিৎসক আকাশ। আত্মহত্যার আগে ফেসবুক স্ট্যাটাসে তিনি স্ত্রীর বিরুদ্ধে ‘বিয়েবহির্ভূতসম্পর্ক’ ও ‘প্রতারণার’ অভিযোগ করেন।

এর ‘প্রমাণ’ হিসেবে মিতুর সঙ্গে তার ‘বন্ধু’দের বেশ কিছু ছবিও আপলোড করেন। এ ঘটনা চট্টগ্রামে ব্যাপক চাঞ্চল্য সৃষ্টি করে। ওই রাতেই নন্দনকানন এলাকায় এক আত্মীয়র বাসা থেকে মিতুকে আটক করে পুলিশ।

পরদিন আকাশের মা জোবেদা খানম বাদী হয়ে আত্মহত্যার প্ররোচনার অভিযোগ এনে ছয়জনকে আসামি করে মামলা করেন। এ মামলায় মিতুকে গ্রেফতার দেখানো হয়। ৭ মাস পর উচ্চ আদালত থেকে জামিন নেন মিতু। অন্য আসামিরা পলাতক রয়েছে।






আপনার মতামত দিন

Your email address will not be published. Required fields are marked as *

*