সর্বশেষ
  • সর্বশেষ
  • সর্বশেষ পঠিত
  • রাজনীতি
জাতীয়

ঈদের আগে খালেদা জিয়াসহ ২২ শিক্ষার্থীর...

স্টাফ | আপডেট: ০৬:৩৮, আগস্ট ১৪ , ২০১৮


  
চন্দ্রিমা শুক্তা:: পবিত্র ঈদুল আজহার আগেই বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবি জানিয়েছেন দলটির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী।

একই সঙ্গে নিরাপদ সড়কের দাবিতে আন্দোলনকারী কারাবন্দি ২২ শিক্ষার্থীর মুক্তির দাবি জানিয়েছেন তিনি।

মঙ্গলবার সকালে নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলন করে তিনি এ দাবি জানান।


 
রিজভী বলেন, কোরবানি ঈদের প্রাক্কালে দেশনেত্রী খালেদা জিয়ার মুক্তি মেলেনি। অন্যায় সাজায় তাকে বন্দি করে রাখা হয়েছে।

আরেকটি একতরফা নির্বাচন আয়োজনের জন্য শেখ হাসিনার একমাত্র প্রতিপক্ষ হিসেবে খালেদা জিয়াকে বন্দি করে রাখা হয়েছে বলে মন্তব্য করেন তিনি।

‘আইনি প্রক্রিয়ার নামে আওয়ামী সরকারি প্রক্রিয়ায় খালেদা জিয়ার ওপর নামিয়ে আনা হয়েছে জুলুম ও অত্যাচার। অবৈধ সরকার নিজেদের নিরাপদ রাখতেই এ জুলুম ও অত্যাচার। তারা বহুদলীয় গণতন্ত্র ও সুষ্ঠু নির্বাচনকে বিপদ মনে করে।’

রিজভী বলেন, খালেদা জিয়াকে কারাগারে আটকে রেখে একতরফা নির্বাচন হবে না। শূন্য কেন্দ্রে ভোটারবিহীন ইলেকশনের নামে সিলেকশন হতে দেয়া হবে না। অবিলম্বে বানোয়াট মামলা প্রত্যাহার করে ঈদের আগেই খালেদা জিয়াকে মুক্তি দিতে হবে।

সংবাদ সম্মেলনে নিরাপদ সড়কের দাবিতে আন্দোলনকারী ২২ শিক্ষার্থীর মুক্তির দাবি জানান রিজভী।

তিনি বলেন, আন্দোলন দমাতে নির্বিচারে শিক্ষার্থীদের গ্রেফতার করা হয়েছে; রিমান্ডে নিয়ে অকথ্য নির্যাতন করা হচ্ছে। তাদের জামিন দেয়া হচ্ছে না।

‘অথচ প্রধানমন্ত্রী দুদিন আগে বলেছেন- শিক্ষার্থীদের আন্দোলন তাদের পথ দেখিয়েছে। একদিকে প্রশংসা আরেক দিকে বর্বোরচিত দমন-পীড়ন এক অদ্ভুত দ্বিচারি সরকার। শিশু-কিশোরদের সঙ্গে প্রতারণা করতেও এরা বেপরোয়া। ন্যায্য আন্দোলন সরকারের কাছে অপরাধ।’


 
বিএনপির এ নেতা বলেন, গ্রেফতারকৃত শিক্ষার্থীরা পরীক্ষা থেকে বঞ্চিত, ঈদের উৎসব থেকে বঞ্চিত হতে হচ্ছে। অবিলম্বে তাদের মুক্তি দাবি জানাচ্ছি।

অর্থনীতি

রফতানি খাতে বাড়ছে অর্থ পাচারের আশঙ্কা



কাজী সাবরিনা:; রফতানি খাতে অর্থ পাচারের আশঙ্কা বাড়ছে। ভুয়া কাগজপত্র দেখিয়ে পণ্য রফতানির কারণে এই আশঙ্কা বাড়ছে। এছাড়া ঋণের নামেও দেশ থেকে হাজার হাজার কোটি টাকা পাচার হচ্ছে। এসব সুস্পষ্ট অপরাধ হলেও কোনো বিচার হচ্ছে না। রোববার রাজধানীতে এক কর্মশালায় বক্তারা এসব কথা বলেন।


 
মিরপুরে বাংলাদেশ ইন্সটিটিউট অব ব্যাংক ম্যানেজমেন্টের (বিআইবিএম) অডিটোরিয়ামে ‘ট্রেড ফ্যাসিলিটেশনস ইন আরএমজি বাই ব্যাংকস : রিস্কস অ্যান্ড মিটিগেশন টেকনিকস’ শীর্ষক গবেষণা কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়।

এতে সভাপতিত্ব করেন বিআইবিএম মহাপরিচালক ড. তৌফিক আহমদ চৌধুরী। বক্তব্য দেন বিআইবিএমের চেয়ার প্রফেসর এবং ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক অধ্যাপক ড. বরকত-এ-খোদা, পূবালী ব্যাংকের সাবেক ব্যবস্থাপনা পরিচালক এবং বিআইবিএমের সুপারনিউমারারি অধ্যাপক হেলাল আহমদ চৌধুরী, বাংলাদেশ ব্যাংকের সাবেক নির্বাহী পরিচালক এবং বিআইবিএমের সুপারনিউমারারি অধ্যাপক ইয়াছিন আলি, অ্যাসোসিয়েশন অব ব্যাংকার্স বাংলাদেশ (এবিবি) চেয়ারম্যান এবং ঢাকা ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা সৈয়দ মাহবুবুর রহমান, এনআরবি ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক এবং প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মেহমুদ হোসেন, বিকেএমইএ দ্বিতীয় সহসভাপতি ফজলে শামীম এহসান, ইস্টার্ন ব্যাংকের উপব্যবস্থাপনা পরিচালক আহমেদ শাহীন প্রমুখ।

মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন বিআইবিএমের পরিচালক (প্রশিক্ষণ) ড. শাহ মো. আহসান হাবীব। গবেষণা দলে ছিলেন বিজিএমইএ পরিচালক মনির হোসেন, বিআইবিএমের সহকারী অধ্যাপক অন্তরা জেরীন, বিআইবিএমের সহকারী অধ্যাপক তোফায়েল আহমেদ, বাংলাদেশ ব্যাংকের যুগ্ম পরিচালক মোহাম্মদ আনিসুর রহমান, ইসলামী ব্যাংকের সিনিয়র ভাইস প্রেসিডেন্ট মাহমুদুর রহমান, মিউচুয়াল ট্রাস্ট ব্যাংকের ভাইস প্রেসিডেন্ট এটিএম নেসারুল হক, বিকেএমইএর সহ-যুগ্ম সম্পাদক ফারুক হোসেন প্রমুখ।
গবেষণা প্রতিবেদনে বলা হয়, তৈরি পোশাক খাতের অর্থায়নে ব্যাংক ও ব্যবসায়ীদের সচেতনতা ও দক্ষতা বৃদ্ধি করা প্রয়োজন। ৬৬ শতাংশ ব্যাংকারের ধারণা পোশাক খাতের অর্থায়নে বড় বাধা বিলম্ব রফতানি। আবার ৫৩ শতাংশ ব্যাংকার মনে করেন রফতানিকারকরা সঠিক কাগজপত্র উপস্থাপন না করায় অর্থায়নে জটিলতা তৈরি হয়।

ড. শাহ মো. আহসান হাবীব বলেন, ব্যাংকের বৈদেশিক বাণিজ্য সেবার মান আগের চেয়ে ভালো। তবে পুরোপুরি কমপ্লায়েন্স মানার বিষয়টি বিশ্বব্যাপী উদ্বিগ্নের বিষয় হয়ে দাঁড়িয়েছে। এর নেতিবাচক প্রভাব পড়ছে তৈরি পোশাক খাতের ওপর।


 
এজন্য সংশ্লিষ্টদের বিষয়টি নিয়ে কাজ করার সুযোগ রয়েছে। মূল প্রবন্ধে তৈরি পোশাক খাতের ঝুঁকির বিভিন্ন দিক তুলে ধরা হয়েছে। অধ্যাপক ড. বরকত-এ-খোদা বলেন, ব্যাংক খাতের রফতানিকেন্দ্রিক জালিয়াতি কমাতে ব্যাংকারদের প্রশিক্ষণের অংশ হিসেবে বিজিএমইএর মতো বিআইবিএমেও নতুন কোর্স চালুর সুযোগ রয়েছে। এটি বৈদেশিক বাণিজ্যে জালিয়াতি কমাতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে।

পোশাক খাতের রফতানি সংক্রান্ত প্রক্রিয়া পুরোপুরি অটোমেশন হলে দীর্ঘমেয়াদি সুফল পাওয়া যাবে। ড. তৌফিক আহমদ চৌধুরী বলেন, আন্তর্জাতিক বাণিজ্যে ব্যাংকারদের আরও দক্ষতার সঙ্গে কাজ করতে হবে। আবার গ্রাহকদেরও সচেতন করতে হবে। এজন্য সংশ্লিষ্ট ব্যাংকের পক্ষ থেকে প্রশিক্ষণের উদ্যোগ নিতে পারে।
অধ্যাপক হেলাল আহমদ চৌধুরী বলেন, বৈদেশিক বাণিজ্যে ঝুঁকি কমাতে সরকারের পক্ষ থেকে নীতিগত সহায়তা দিতে হবে। পোশাক রফতানিতে ব্যাংকের সবচেয়ে বড় ঝুঁকির জায়গা সাব-কন্ট্রাক্ট। ব্যাংক কর্মকর্তাদের সাব-কন্ট্রাক্টের বিষয়ে সতর্ক থাকতে হবে।

অধ্যাপক ইয়াছিন আলী বলেন, দেশ থেকে ঋণের নামে অর্থপাচার বড় অপরাধ। ব্যাংক কর্মকর্তারা জেনেও অনেক ক্ষেত্রে কিছুই করতে পারেন না। তবে একটি ঘটনা ফাঁস হলে তখন অন্য ঘটনাগুলো সামনে চলে আসে।


 
সৈয়দ মাহবুবুর রহমান বলেন, আমদানি-রফতানি প্রক্রিয়ার শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত ব্যাংকের নজরদারি বাড়াতে হবে। তবেই কোনো অসঙ্গতি থাকলে তা দূর করা সম্ভব হবে।

মেহমুদ হোসেন বলেন, বৈদেশিক বাণিজ্য ঝুঁকিমুক্ত করতে প্রশিক্ষণের বিকল্প নেই। প্রয়োজনে দেশে এবং বিদেশে প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করতে হবে। রফতানিকারকদেরও নিজস্ব দক্ষ জনবল গড়ে তুলতে হবে।

ফজলে শামীম এহসান বলেন, নানা কারণে ৬৫ শতাংশ রফতানি নির্দিষ্ট সময়ে করা সম্ভব হয় না। এটি একটি বড় চ্যালেঞ্জ। কারণ পোশাক খাতে দক্ষ শ্রমিক সংকট রয়েছে।

আহমেদ শাহীন বলেন, পোশাক খাতের বাণিজ্য অনেকটা বিশ্বাসের ওপর নির্ভরশীল। নিয়ম-কানুনের মধ্যে থেকে সবকিছু করা সম্ভব হয় না। তবে জেনে-বুঝে অর্থায়নের সিদ্ধান্ত নিতে হবে।

রাজনীতি

প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে সমাবেশের ঘোষণা...

স্টাফ | আপডেট: ০৬:৩৪, আগস্ট ১৪ , ২০১৮


 
শারমিন শিলা: আগামী ১ সেপ্টেম্বর বিএনপির প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে ঢাকায় সমাবেশ করার ঘোষণা দিয়েছে দলটি।

মঙ্গলবার দুপুর ১২টায় রাজধানীর নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী এ ঘোষণা দেন।

তিনি বলেন, আমরা ১ সেপ্টেম্বর আমাদের দলের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে দলীয় কার্যালয়ের সামনে অথবা সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে সমাবেশ করার অনুমতি চাইব। এ উপলক্ষে গণপূর্ত মন্ত্রণালয় ও ডিএমপি কমিশনারকে চিঠি দেয়া হবে। আমরা আশা করছি, সমাবেশের অনুমতি পাব।

রিজভী বলেন, আগামীকাল আমাদের প্রিয় নেত্রী খালেদা জিয়ার জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে তার মুক্তি ও রোগমুক্তির কামনায় সারা দেশে পূর্বঘোষিত মিলাদ মাহফিলের আয়োজন করা হবে। ঢাকায় হবে বেলা ১১টায় নয়াপল্টনে।

সংবাদ সম্মেলনে বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা আবদুস সালাম, সহসাংগঠনিক সম্পাদক অ্যাডভোকেট আবদুস সালাম আজাদ, সহদফতর সম্পাদক তাইফুল ইসলাম টিপু, মুনির হোসেন উপস্থিত ছিলেন।

সারাদেশ

চকরিয়ায় ইউ পি সদস্যের ইন্ধনে অন্যের...

কক্সবাজার প্রতিনিধিঃ কক্সবাজারের চকরিয়ায় বসতভীটার জমি জবর দখলে নিতে হামলা,ভাংচুর ও লুটপাটের ঘটনা ঘটেছে।এ নিয়ে ভূক্তভোগী পরিবার ইতিপূর্বে মামলা করলেও ফের ঘটনায় থানায় নতুন করে লিখিত অভিযোগ দিয়েছে। উপজেলার সাহারবিল ইউনিয়নের ২নং ওয়ার্ড মখলেচুর রহমানপাড়ায় ঘটেছে এ ঘটনা।জমি জবর দখলে বর্তমানেও হুমকি ধমকি অব্যাহত রেখেছে অভিযুক্ত দখলবাজরা।আতংকে ও চরম নিরাপত্তাহীনতায় দিন কাটছে ভোক্তভোগি পরিবার। অভিযোগে জানাগেছে,সাহারবিল মখলেচুর রহমানপাড়া গ্রামের মৃত নুরুল হকের পুত্র আলহাজ্ব আবদুল জলিল গংয়ের ভোগ দখলীয় সাহারবিল মৌজার বিএস খতিয়ান নং ১৭৭, ৭৩৩, ৭৩৪, ২৯৩ ও ৪১ দাগ নং ৭২৮, ৭৩৭, ৭২৯, ৭৩০, ৭৪০ ও ৭৩৯ দাগাদির বিএস ৭২৮, ৭৩০ ও ৭৪০ দাগে স্থিত ও ভোগ দখলীয় বসতভীটা জবর দখলের পায়তারা চালায় একই এলাকার শাহ আলমের পুত্র মো: ফারুক গং। ইতিপূর্বে ৪জুলাই সকাল ১১টায় অভিযুক্ত মো: ফারুক, জয়নাল আবদীন, মো: বাবুলসহ ভাড়াটিয়া সন্ত্রাসী বাহিনী নিয়ে জমি জবর দখলে নিতে যায়। এসময় বাধা দিলে জমি মালিক আবদুল জলিলের স্ত্রী আরফা বেগম (৫০), তার দুই ছেলে সাইফুল ইসলাম ও আরিফুল ইসলামকে কুপিয়ে জখম করে। এক পর্যায়ে বসতবাড়িতে ব্যাপক ভাংচুর চালায়। অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে লুট করে নিয়ে যায় ৪০ হাজার টাকা মূল্যের ১ ভরি ওজনের একটি স্বর্ণের চেইন, নগদ ৮০ হাজার টাকা এবং ভাংচুরে ৪০ হাজার টাকার ক্ষতিসহ ১লক্ষ ৬০ হাজার টাকার ক্ষতি সাধন করেছে। ইতিপূর্বেও জবর দখল নিয়ে হামলার ঘটনায় থানায় মামলা নং জিআর ৫৫১/১৫ চলমান রয়েছে। নতুন করে হামলার ঘটনায় থানায় লিখিত অভিযোগ দেওয়া হয়েছে। অভিযোগটি থানার উপপরিদর্শক (এসআই) এনামুল হক তদন্ত করছেন। তদন্তকালে ঘটনার সত্যতাও পেয়েছেন। অপরদিকে থানায় অভিযোগ দেওয়ার পরও ১৩ আগষ্ট পযর্ন্ত ফের জমি দখলে নানাভাবে হুমকি ধমকিসহ অস্ত্রের মহড়া দিচ্ছে। এনিয়ে ভূক্তভোগী পরিবার প্রশাসনের হস্তক্ষেপ পূর্বক আইনী সহায়তা চেয়েছেন। অন্যদিকে অভিযুক্ত শাহ আলমের পুত্র মো: ফারুক গংয়ের বিরুদ্ধে খালি স্ট্যাম্পে জোরপূর্বক স্বাক্ষর নেওয়ার অভিযোগ তুলে উপজেলা নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট আদালত চকরিয়ায় মামলা করেছেন তারই নিকটাত্বীয় একই এলাকার মৃত নুরুল আলমের স্ত্রী ছাবেকুন নাহার। মামলায় পৈত্রিক জমি-জমা সংক্রান্ত বিষয়ে ৩০০ টাকার ননজুডিশিয়াল স্ট্যাম্পে জোর করে স্বাক্ষর আদায়ের অভিযোগ তুলেন। অভিযুক্তরা এলাকায় নানা অপরাধ কর্মকান্ডের সাথে জড়িত বলে জানান। মো: ফারুক গংয়ে অপরাধ কর্মকান্ডের পেছনে স্থানীয় সাহারবিল ইউপি ২নং ওয়ার্ডের সদস্য (মেম্বার) জয়নাল আবদীনের ইন্ধন রয়েছে বলে অভিযোগ রয়েছে।

খেলাধুলা

মেসির বিপক্ষে খেলতে তর সইছে না তেভেজের

স্টাফ | আপডেট: ০৬:৩১, আগস্ট ১৪ , ২০১৮



কাকলি সেন সেতু:; একসময় কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে খেলেছেন আর্জেন্টিনার হয়ে। তবে বিপক্ষে খেলার সুযোগ হয়নি। এবার সেই স্বাদ নিতে যাচ্ছেন লিওনেল মেসি ও কার্লোস তেভেজ।


 
ঐতিহাসিক জোয়ান গাম্পার ট্রফির লড়াইয়ে বুধবার ক্যাম্প ন্যুতে মুখোমুখি হবে বার্সেলোনা ও বোকা জুনিয়র্স। স্প্যানিশ ক্লাব বার্সার হয়ে খেলেন মেসি। আর আর্জেন্টাইন ক্লাব বোকা জুনিয়র্সের হয়ে মাঠ মাতান তেভেজ। ফলে একে অপরের বিপক্ষে খেলার সুযোগ পাচ্ছেন তারা।

প্রিয় সতীর্থের বিপক্ষে খেলতে মুখিয়ে তেভেজ, মেসির বিপক্ষে খেলা সবসময়ই রোমাঞ্চকর। আমি শিহরিত। যখন তার সঙ্গে জুটি বেঁধে খেলতাম, আমি আনন্দে আটখানা হতাম। এবার ওর বিপক্ষে খেলব। তাকে ফের কাছ থেকে দেখব। এটি আমাকে হ্যাপি করবে।

এখন পর্যন্ত আর্জেন্টিনার জার্সি গায়ে ৭৬টি ম্যাচ খেলেছেন তেভেজ। বয়স হয়ে গেছে ৩৪। তাই ব্রাত্য জাতীয় দলে। তবে ফেরার স্বপ্ন দেখেন এখনো।

অন্যদিকে দোর্দণ্ড প্রতাপে ফুটবল বিশ্ব শাসন করছেন মেসি। সদ্যই বার্সার হয়ে ৩৩তম শিরোপা জয়ের রেকর্ড গড়েছেন তিনি। এখন কাতালানদের অবিসংবাদিত সেরা ৩১ বছর বয়সী ফুটবলার।

বিনোদন

প্রিয়াংকার সঙ্গে বাগদান সম্পন্ন, শিগগির...



মার্জান সোহাগী: বলিউড অভিনেত্রী প্রিয়াংকা চোপড়ার সঙ্গে বাগদান সম্পন্ন হওয়ার কথা জানিয়েছেন মার্কিন সংগীতশিল্পী নিক জোনাস। তিনি জানান, খুব শিগগির তারা বিয়ের পিঁড়িতে বসবেন।


 
এদিকে গত ৬ আগস্ট যুক্তরাষ্ট্র থেকে ভারতে ফেরার সময় প্রিয়াংকার হাতে বাগদানের আংটি দেখা গেছে।

দিল্লির বিমানবন্দরে পৌঁছানোর পর প্রিয়াংকা হাত থেকে বাগদানের আংটি খুলে নিজের প্যান্টের পকেটে রাখেন।

ইউএস উইকলি সাময়িকীর প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, আগস্টেই নিউইয়র্কের এক অনুষ্ঠানে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে নিক তাদের বাগদানের কথা জানান।

এ সময় প্রিয়াংকাকে বিয়ে ও ভবিষ্যৎ পরিকল্পনার নিয়ে প্রশ্ন করা হলে হাসিমুখে জবাব দেন নিক। তিনি জানান, তারা খুব তাড়াতাড়ি সংসার পাততে চান।

আন্তর্জাতিক

মিসরে মুসলিম ব্রাদারহুড প্রধানসহ...

স্টাফ | আপডেট: ০২:১৫, আগস্ট ১৩ , ২০১৮



ইয়াসমিন আক্তার:; মিসরের মুসলিম ব্রাদারহুডের প্রধান মোহাম্মদ বাদিসহ দলটির আরো পাঁচ নেতাকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ডের শাস্তি দিয়েছেন আদালত।


 
দেশটির আদালত সূত্র জানায়, পাঁচ বছর আগে বিক্ষোভে সহিংসতা ও হত্যায় উসকানি দেয়ার অভিযোগে রোববার তাদের এ সাজা দেয়া হয়েছে।

মিসরে নিষিদ্ধ দলটির শীর্ষ নেতা বাদিসহ আরও কয়েকজনের বিচার ও পুর্নবিচারের সর্বশেষ সাজা হল এটি। সেনাবাহিনী গণতান্ত্রিকভাবে নির্বাচিত প্রেসিডেন্ট মোহাম্মদ মুরসিকে ক্ষমতাচ্যুত করার আগে দেশটির ক্ষমতায় এসেছিল মুসলিম ব্রাদারহুড।

সূত্র বার্তা সংস্থা রয়টার্সকে জানায়, গিজা অপরাধ আদালত মোহাম্মদ বাদিসহ বেশ কয়েকজনের সাজা ঘোষণা করেছেন। তাদের মধ্যে দলটির মুখপাত্র এসাম আল এরিয়ান ও জ্যেষ্ঠ নেতা মোহাম্মদ এল-বেলটাজিও রয়েছেন।

মিসরের রাষ্ট্রীয় বার্তা সংস্থা মেনা জানিয়েছে, আরেক বিবাদীকে ১৫ বছর ও তিনজনকে ১০ বছর করে কারাদণ্ড দেয়া হয়েছে।

২০১৩ সালের ১৫ জুলাই সহিংসতা উসকে দেয়ার অভিযোগে মোহম্মদ বাদিসহ অন্যান্য নেতাদের দোষী সাব্যস্ত করা হয়।

গত মাসে একটি আদালত মোহাম্মদ বাদি ও অন্যান্য জ্যেষ্ঠ নেতাদের নথি মিসরের সর্বোচ্চ ধর্মীয় কর্তৃপক্ষ মুফতির কাছে পাঠিয়ে জানতে চায়, তাদের মৃত্যুদণ্ড দেয়া যায় কিনা।

মিসরের আইনে কারো মৃত্যুদণ্ডের শাস্তি কার্যকর করার আগে গ্রান্ড মুফতি শাওকি আল্লামের মতামত জানতে চাওয়া হয়। তার মতামত এখনো ঘোষণা করা হয়নি।

শিক্ষা

শিক্ষার্থীদের আন্দোলনে ‘বিবিসির লোগো’...

স্টাফ | আপডেট: ০৬:৩৩, আগস্ট ১৪ , ২০১৮



নুসরাত জাহান রিম:: নিরাপদ সড়কের দাবিতে শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভে বিবিসি ওয়ার্ল্ড সার্ভিসের লোগে ব্যবহার করে গুজব ছড়ানো হয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। তবে বিবিসি জানিয়েছে, এমন কোনো গুজব তারা ছড়ায়নি। তাদের লোগে ব্যবহার করে ভুয়া খবর প্রচার করা হয়েছে।


 
মঙ্গলবার তথ্য প্রতিমন্ত্রী তারানা হালিমের ফেসবুক পেজে দেয়া পোস্ট থেকে এ তথ্য জানা গেছে।

সামাজিক মাধ্যমটিতে তারানা হালিম লিখেছেন, নিরাপদ সড়কের যৌক্তিক আন্দোলনে বিবিসির লোগো ব্যবহার করে ছাত্র হত্যা ও ছাত্রী ধর্ষণের তথ্য রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিত হয়ে একটি গোষ্ঠী ছড়িয়েছিল।


 
তিনি বলেন, তথ্য মন্ত্রণালয় থেকে বিবিসি ওয়াল্ড সার্ভিসকে এ বিষয়ে জানতে চিঠি দেয়া হয়েছিল। গত ৭ আগস্ট বিবিসি সেই চিঠির জবাব দিয়েছে। তারা বলেছে, ভুয়া লোগে ব্যবহার করে এটা করা হয়েছে।

তারানা হালিম বলেন, বিবিসি জানিয়েছে, তারা এ ধরনের কোনো গুজব ছড়ায়নি। ভুয়া খবরে তাদের লোগে ব্যবহারের বিষয়টি তারা ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে জানিয়েছেন।

বিবিসির পক্ষ থেকে চিঠির জবাবে সই করেছেন বিবিসি বাংলার ঢাকা ব্যুরোর সম্পাদক ওয়ালিউর রহমান মিরাজ।

তথ্যপ্রতিমন্ত্রী বলেন, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম আজকাল ভুয়া লোগো ব্যবহার করেও গুজব ছড়ানোর এটি একটি দৃষ্টান্ত।

কাজেই সবাইকে এ বিষয়ে সচেতন হওয়ার আহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন, আমাদের সচেতনতাই সুন্দর সমাজ গঠনে সহায়ক হবে।

গত ২৯ জুলাই শহীদ রমিজ উদ্দিন ক্যান্টনমেন্ট কলেজের একদল শিক্ষার্থীর ওপর উঠে যায় জাবালে নূর পরিবহনের একটি বেপরোয়া বাস। এতে দুই শিক্ষার্থী নিহত হন। আহত হন আরও বেশ কয়েকজন।

এর প্রতিবাদে ক্ষোভে ফেটে পড়েন শিক্ষার্থীরা। নিরাপদ সড়কের দাবিতে সড়কে আন্দোলনে নামেন তারা; সেই আন্দোলন ছড়িয়ে পড়ে সারাদেশে।


 
এ সময় পুরো রাজধানী অচল করে দিয়ে টানা এক সপ্তাহ বিক্ষোভ দেখায় বিভিন্ন স্কুল-কলেজের ছাত্রছাত্রীরা। এক পর্যায়ে বিভিন্ন গুজব ছড়ানো হলে ঘটনাপ্রবাহ সহিংসতায় গড়ায়।

স্বাস্থ্য

রিমান্ডে থাকা আলোকচিত্রী শহিদুলকে দ্রুত...

কলামিস্ট | আপডেট: ২৩:৩৮, জুলাই ১৩ , ২০১৮



চন্দ্রিমা শুক্তা:: তথ্যপ্রযুক্তি আইনে দায়ের করা মামলায় ৭ দিনের রিমান্ডে থাকা আলোকচিত্রী শহিদুল আলমকে গোয়েন্দা পুলিশের হেফাজত থেকে দ্রুত হাসপাতালে স্থানান্তরের নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট।


 
মঙ্গলবার বিচারপতি সৈয়দ মো. দস্তগীর হোসেন ও বিচারপতি ইকবাল কবীরের হাইকোর্ট বেঞ্চ এ আদেশ দেন।


 
এর আগে শহিদুলকে রিমান্ডে পাঠানোর বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে ও তার সুচিকিৎসার ব্যবস্থা করার আবেদন জানিয়ে তার স্ত্রী রেহনুমা আহমেদ হাইকোর্টে একটি রিট আবেদন করেন।

রিট আবেদনের শুনানি নিয়ে দৃক গ্যালারির প্রতিষ্ঠাতা আলোকচিত্রী শহিদুল আলমকে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে (বিএসএমএমইউ) চিকিৎসা দেয়ার নির্দেশ দেন হাইকোর্ট।

সেই সঙ্গে বোর্ড গঠন করে বৃহস্পতিবার সকাল ১০টা ৩০ মিনিটে প্রতিবেদন দাখিলের জন্যও নির্দেশ দেন আদালত। সেদিন বাকি শুনানি অনুষ্ঠিত হবে বলেও জানিয়েছেন হাইকোর্ট।

আদালতে শহিদুল আলমের পক্ষে ছিলেন ড. কামাল হোসেন, ব্যারিস্টার জোতির্ময় বড়ুয়া, ব্যারিস্টার সারা হোসেন ও অ্যাডভোকেট তানিম হোসেন শাওন। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল অমিত তালুকদার।

শিক্ষার্থীদের আন্দোলনের মধ্যে ‘উসকানিমূলক মিথ্যা’ প্রচারের অভিযোগে রোববার রাতে শহিদুল আলমকে তার ধানমণ্ডির বাসা থেকে আটক করে ডিবি পুলিশের একটি দল।

পরে রমনা থানায় তথ্যপ্রযুক্তি আইনে দায়ের করা একটি মামলায় তাকে গ্রেফতার দেখিয়ে আদালতে হাজির করে ১০ দিনের রিমান্ডের আবেদন করা হয়। শুনানি শেষে আদালত তার ৭ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

উল্লেখ্য, দেশের ছাত্র আন্দোলন নিয়ে সম্প্রতি একটি আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমকে সাক্ষাৎকার দিয়েছিলেন শহিদুল আলম।

আইটি টেক

পেজ চালানোর নতুন নিয়মকানুন বেঁধে দিচ্ছে...

স্টাফ | আপডেট: ০৩:৩৩, আগস্ট ১৩ , ২০১৮



নেভিয়া সফট ডেস্ক:; ফেসবুক পেজ চালানোর ক্ষেত্রে আরও স্বচ্ছতা ও বিশ্বাসযোগ্যতা তৈরির জন্য নতুন ফিচার ঘোষণা করেছে ফেসবুক কর্তৃপক্ষ। গতকাল শুক্রবার ফেসবুক নতুন এ ফিচারের ঘোষণা দেয়। নতুন ফিচারের মধ্যে উল্লেখযোগ্য হচ্ছে ‘পেজেস পাবলিশিং অথোরাইজেশন’ বা পেজ প্রকাশের অনুমোদনসংক্রান্ত বিষয়। আপাতত যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক ব্যাপক অনুসারী আছে—এমন পেজগুলোর ক্ষেত্রে অনুমোদন প্রয়োজন হবে।

এ ছাড়া পেজটি কোন দেশ থেকে তৈরি, তার লোকেশন বা অবস্থান অবশ্যই উল্লেখ করতে হবে। কোনো পেজ যদি মার্জ করা হয় বা পরস্পরের সঙ্গে যুক্ত করা হয়, তাও দেখার সুবিধা থাকতে হবে।

ফেসবুক কর্তৃপক্ষ বলছে, যাঁরা ফেসবুক পেজ চালান বা ব্যবস্থাপক হিসেবে কাজ করেন, তাঁদের ক্ষেত্রে কিছুটা কঠোর হতে যাচ্ছে ফেসবুক কর্তৃপক্ষ। পেজে পোস্ট দেওয়ার ক্ষেত্রে তাঁদের নির্দিষ্ট কিছু নিয়মনীতির মধ্যে থাকতে হবে। তাঁদের এখন টু-ফ্যাক্টর অথেনটিকেশন প্রক্রিয়ার মধ্য দিয়ে যেতে হবে এবং কোনো কিছু পোস্ট করার আগে তাঁদের অবস্থান (প্রাইমারি হোম লোকেশন) ফেসবুককে নিশ্চিত করতে হবে।

ফেসবুক কর্তৃপক্ষ বলছে, ভুয়া খবর প্রকাশ ঠেকানোর লক্ষ্য নিয়ে তারা এ প্রক্রিয়া চালু করছে। হ্যাক হওয়া অ্যাকাউন্টের বিরুদ্ধেও এতে ব্যবস্থা নেওয়া যাবে। জোর করে অনুমোদনের এ প্রক্রিয়া চলতি মাসের শেষ দিকে শুরু হবে।

পেজ হিস্ট্রি পেজের মধ্যে কোন পেজের সঙ্গে কোন পেজ কখন একত্র করা হয়েছে, তা প্রদর্শন করা হবে। এতে ওই পেজের অনুসারীদের কাছে পেজের স্বচ্ছতা থাকবে। এ ছাড়া অনুসারীরা সচেতন থাকতে পারবেন। পেজের সঙ্গে ‘পিপল হু ম্যানেজ দিস পেজ’ নামে একটি সেকশন বা বিভাগ যুক্ত হবে, যেখানে পেজ ব্যবস্থাপকদের সম্পর্কে তথ্য থাকবে।

ফেসবুক ছাড়াও ইনস্টাগ্রামে এ ফিচার চালু করতে পারে ফেসবুক। আপাতত যুক্তরাষ্ট্রে বড় আকারের পেজগুলোয় এ ফিচার পরীক্ষা চালাচ্ছে ফেসবুক।

২০১৬ সালে মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ভুয়া খবর ও ডেটা প্রাইভেসি-সংক্রান্ত কেলেঙ্কারির পর ফেসবুকের কাছ থেকে এ পদক্ষেপ নেওয়ার ঘোষণা এল। ফেসবুক পেজের ক্ষেত্রে সামান্য পরিবর্তন ভুয়া খবর ঠেকানোর পথে একধাপ অগ্রগতি বলেই মনে করা হচ্ছে।

সাহিত্য

শহিদুলকে হাসপাতালে ভর্তির মত কিছু...

স্টাফ | আপডেট: ০৬:২৭, আগস্ট ০৮ , ২০১৮


মার্জান সোহাগী:: নিরাপদ সড়কের দাবিতে শিক্ষার্থীদের আন্দোলনের মধ্যে ‘উসকানিমূলক মিথ্যা’ বক্তব্য প্রচারের অভিযোগে রিমান্ডে থাকা আলোকচিত্রী শহিদুল আলমকে হাসপাতালে ভর্তির মত কিছু মেলেনি বলে জানিয়েছেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় (বিএসএমএমইউ) হাসপাতালের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল আব্দুল্লাহ-আল-হারুন।


 
বুধবার হাইকোর্টের আদেশে বিএসএমএমইউ হাসপাতালে নেয়ার পর স্বাস্থ্য পরীক্ষা শেষে তিনি এ কথা জানান।


 
স্বাস্থ্য পরীক্ষা শেষে তাকে আবারো গোয়েন্দা পুলিশের হেফাজতে নেয়া হয়।

আব্দুল্লাহ-আল-হারুন সাংবাদিকদের জানান, মেডিকেল বোর্ড তাকে পরীক্ষা নিরীক্ষা করে দেখেছে। তাকে হাসপাতালে ভর্তি করার মত তেমন কিছু মেলেনি। শহিদুল আলমের স্বাস্থ্য পরীক্ষার বিস্তারিত ফলাফল বৃহস্পতিবার পাওয়া যাবে।

এর আগে মঙ্গলবার হাইকোর্টের দেয়া আদেশ অনুযায়ী বুধবার সকাল নয়টার দিকে শহীদুল আলমকে বিএসএমএমইউ নেয়া হয়।

তথ্যপ্রযুক্তি আইনে করা মামলায় রিমান্ডে থাকা আলোকচিত্রী শহীদুল আলমকে চিকিৎসা ও স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য অবিলম্বে বিএসএমএমইউয়ে পাঠাতে মঙ্গলবার নির্দেশ দিয়েছিলেন হাইকোর্ট।

ফিচার

রাস্তায় নিরাপদ থাকতে যা করবেন

স্টাফ | আপডেট: ০৭:০৭, আগস্ট ০৭ , ২০১৮



সোহানা কবির সোহা: প্রতিদিনই সড়ক দুর্ঘটনায় মারা যাচ্ছে অনেক মানুষ।দেশের রাস্তাগুলো যেন মৃত্যুফাঁদ হয়ে দাঁড়িয়েছে। প্রতিদিন ঝরে যায় কতো প্রাণ। তবে একটু সচেতন থাকলে এবং কিছু ব্যাপার খেয়াল রাখলে ঠেকানো যেতে পারে সড়ক দুর্ঘটনা।


 
রাস্তায় বের হলে নিরাপদে আবার ঘরে ফিরতে পারবো, এই আশাও করতে পারিনা আমরা। রাস্তায় চলাচলের কিছু নিয়ম রয়েছে যা মেনে চললে সড়ক দুর্ঘটনার সংখ্যা কমানো সম্ভব।

রাস্তায় চলার সময় যে বিষয়গুলো অবশ্যই খেয়াল রাখতে হবে।

১. রাস্তা পার হওয়ার সময় গাড়ি দেখে পার হবেন।

২. ফোনে কথা বলবেন না।

৩. জেব্রা ক্রসিং ব্যবহার করুন।

৪. ফুটওভারব্রিজ ব্যবহার করুন।

৫. জেব্রা ক্রসিং না থাকলে সামনে-পেছনে, ডানে-বাঁয়ে দেখে পার হোন।

৬. রাস্তায় গাড়ি নিয়ন্ত্রণের লাইটের সংকেত দেখে নিতে হবে।


 
৭. লাল বাতি মানে থামুন, হলুদ বাতিতে তৈরি হও, সবুজে সামনে চলতে শুরু করতে হবে।

৮. পাবলিক বাসে ওঠা ও নামার সময় সতর্ক থাকুন।

৯. আমাদের দেশে গাড়িগুলো সাধারণত রাস্তার বাম দিক দিয়ে চলে তাই ডানপাশ দিয়ে হাঁটুন।

১০. বাইক চালানোর সময় ফুটপাতে ওঠাবেননা।

১১. গাড়ি চালানোর সময় অবশ্যই খেয়াল রাখুন, সর্তক থাকুন।
রাস্তায় নিরাপদে থাকতে, ট্রাফিক আইন মেনে চলুন।

জবাব নেই অনেক প্রশ্নের
বিএফইউজে সভাপতি মোল্লা জালাল
পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের প্রধান হচ্ছেন ওয়াসিম আকরাম!
বছরে ৩ লাখ মানুষ হত্যা করে যুক্তরাষ্ট্র!
নির্বাচনী এলাকার নেতাকর্মীদের অন্য জেলায় চালান দেয়া হচ্ছে’
নৌকায় ভোট দিলে সুখে থাকে দেশের মানুষ: প্রধানমন্ত্রী
রকমারি

ঘরেই তৈরি করুন নোনা ইলিশ কাবাব

স্টাফ | আপডেট: ০৬:১১, জুলাই ২৬ , ২০১৮



সোহানা কবির সোহা:: রেস্টুরেন্টে বিভিন্ন ধরনের কাবাব প্রায়ই খেয়ে থাকি আমরা। তবে খেয়েছেন কী নোনা ইলিশ কাবাব। অতিথি আপ্যায়নে বিকালের নাশতায় জন্য ঘরেই তৈরি করুন নোনা ইলিশ কাবাব। খেয়ে দেখতে পারেন ভিন্ন স্বাদের এই কাবাবটি।


 
আসুন জেনে নেই কীভাবে তৈরি করবেন নোনা ইলিশ কাবাব।

উপকরণ

নোনা ইলিশ বড় এক পিস, মসুর ডাল ১/৩ কাপ, পেঁয়াজ ও রসুন বাটা দুই চা চামচ, হলুদ গুঁড়া এক চা চামচ, মরিচ গুঁড়া এক চা চামচ, ধনেপাতা কুচি এক চা চামচ , সয়াবিন তেল পরিমাণমতো, লবণ স্বাদমতো।

কাঁচামরিচ/ বোম্বাই মরিচ বাটা বা মিহি কুচি পরিমাণমতো, আস্ত জিরা, ভাজা জিরার গুঁড়া পরিমাণমতো।

যেভাবে তৈরি করবেন

প্রথমে নোনা ইলিশ সারা রাত ভিজিয়ে ভালোভাবে পরিষ্কার করে নিতে হবে। এরপর গরম তেলে এপিঠ-ওপিঠ করে ভেজে কাটা বেছে নিন। মসুর ডাল ঘণ্টাখানেক ভিজিয়ে রাখার পর মাছ, ডাল, পেঁয়াজ, রসুন, মরিচসহ একসঙ্গে মিশিয়ে বেটে/ব্লেন্ড করে নিন।

এবার ভাজা জিরা গুঁড়া, ধনেপাতা কুচি, আস্ত জিরা যোগ করে মেখে নিয়ে কাবাবের আকারে বানিয়ে ডুবো তেলে ভেজে নিন। এবার পরিবেশন করুন পরিবারের সবাইকে।